News update
  • Sylhet Flood: 37,000 people still living in shelters     |     
  • Bangladesh reaffirms commitment to achieve SDG-14 at UN Conference     |     
  • Water levels in 61 rivers rise, 41 fall     |     
  • Bus fare hiked again for south-southwestern routes     |     
  • Global Covid cases top 552 million, deaths 6.357 mn     |     

সেনাবাহিনী প্রধানের বগুড়া এরিয়ায় কৃষিপণ্য উৎপাদন প্রতিযোগিতা-২০২২ পরিদর্শন

গ্রীণওয়াচ ডেস্ক error 2022-05-18, 8:04am

image-42333-1652809246-4c98947d43ade60475ea9f41e5e1028d1652839453.jpg




সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, এসবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি মঙ্গলবার বগুড়া এরিয়ায় কৃষিপণ্য উৎপাদন প্রতিযোগিতা-২০২২ পরিদর্শন করেছেন।
এছাড়াও তিনি বগুড়া আর্মি  মেডিকেল কলেজ পরিদর্শন ও প্রকল্পের অগ্রগতি অবলোকন করেন এবং কলেজ  প্রাঙ্গণে বৃক্ষরোপণ করেন।  পরবর্তীতে তিনি  স্টেশন  বোট ক্লাব লেক’এ মাছের  পোনা অবমুক্ত করেন।
এ সময় তিনি সেনাবাহিনীর এই বিশেষ উদ্যোগ জাতীয় মোট  উৎপাদনে কিভাবে ভূমিকা রাখছে  সে সম্পর্কে আলোকপাত করেন।  সেনাবাহিনী প্রধান বগুড়া সেনানিবাসের বিভিন্ন  স্থান ও কর্মকান্ড পরিদর্শন করেন। এরপর তিনি সেনানিবাসে একটি অফিসার্স  কোয়ার্টারের  ভিত্তি  প্রস্তর স্থাপন করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোঃ সাইফুল আলম, কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল মেজর জেনারেল এফ এম জাহিদ হোসেন, ভারপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ার-ইন-চিফ এবং মেজর জেনারেল এ কে এম নাজমুল হাসান, জিওসি, ১১ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার বগুড়া এরিয়া।
খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্যে  প্রধানমন্ত্রীর যুগান্তকারী পদক্ষেপ-'এক ইঞ্চি জমিও অনাবাদি রাখা যাবে না', বাস্তবায়নে সেনাবাহিনী  প্রধানের দিকনির্দেশনায় সেনাবাহিনীর সকল এরিয়া/ ফরমেশনসমূহ মৌসুমভিত্তিক অব্যবহৃত ও পতিত জমি কৃষিকাজে ব্যবহৃত হচ্ছে। সেনানিবাসের সকল অনাবাদী জমিতে, এমনকি প্রতিটি বাসা-বাড়ীর আনাচে-কানাচে লাগানো হয়েছে বনজ, ঔষধি ও ফলের গাছ। উন্মুক্ত স্থানে চাষ করা হচ্ছে নানা জাতের মৌসুমী ও বারোমাসি ফল এবং নানা ধরনের মৌসুমী শাকসবজি। পুকুর ও জলাভূমি ব্যবহার করা হচ্ছে মাছ  চাষ এবং হাঁস পালনে। বিভিন্ন প্রকার খামার ছাড়াও বায়োফ্লক পদ্ধতিতে উৎপাদিত হচ্ছে শিং এবং তেলাপিয়া মাছ।
প্রধানমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় সেনাবাহিনী প্রধানের বিশেষ উদ্যোগে সকল সেনানিবাসে কৃষি ভিত্তিক উৎপাদন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা বজায় রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। মানুষের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে এবং বাণিজ্যিক কৃষিতে উত্তরণের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়নের অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এ প্রয়াস আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। তথ্য সূত্র বাসস।